মেনু নির্বাচন করুন

নো মাস্ক নো সার্ভিস। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে এখনই ডাউনলোড করুন Corona Tracer BD অ্যাপ। ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন https://bit.ly/coronatracerbd। নিজে সুরক্ষিত থাকুন অন্যকেও নিরাপদ রাখুন। দেশের প্রথম ক্রাউডফান্ডিং প্ল্যাটফর্ম 'একদেশ'- এর মাধ্যমে আর্থিক অনুদান পৌঁছে দিন নির্বাচিত সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহে। ভিজিট করুন ekdesh.ekpay.gov.bd অথবা “Ek Desh” অ্যাপ ডাউনলোড করুন। করোনার লক্ষণ দেখা দিলে গোপন না করে ডাক্তারের পরামর্শের জন্য ফ্রি কল করুন ৩৩৩ ও ১৬২৬৩ নম্বরে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নিয়ম মেনে মাস্ক ব্যবহার করুন। আতঙ্কিত না হয়ে বরং সচেতন থাকুন। ভিজিট করুন corona.gov.bd


ভিডিও গ্যালারী

 

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী

 

‘তোমাদের এই ঋণ কোনোদিন শোধ হবে না’

মুক্তিযুদ্ধের পটভূমি

​১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চ মধ্যরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ঘুমন্ত নিরস্ত্র বাঙালির ওপর আধুনিক যুদ্ধাস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল৷ বাংলাদেশিদের স্বাধীকার আন্দোলন, এমনকি জাতীয় নির্বাচনের ফলাফলের আইনসঙ্গত অধিকারকেও রক্তের বন্যায় ডুবিয়ে দিতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী শুরু করেছিল সারাদেশে গণহত্যা৷

সেইরাতে হানাদাররা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হল, ইকবাল হল, রোকেয়া হল, শিক্ষকদের বাসা, পিলখানার ইপিআর সদরদপ্তর, রাজারবাগ পুলিশ লাইনে একযোগে নৃশংস হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে হত্যা করে অগণিত নিরস্ত্র দেশপ্রেমিক ও দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের৷ পাকহানাদার বাহিনী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় একাধিক গণকবর খুঁড়ে সেখানে শত শত লাশ মাটি চাপা দিয়ে তার ওপর বুলডোজার চালায়৷ নগরীর বিভিন্ন স্থানে সারারাত ধরে হাজার হাজার লাশ মাটি চাপা দেয়া হয়৷ পুরানো ঢাকার বুড়িগঙ্গায় ভাসিয়ে দেয়া হয় নিহতদের লাশ৷ বঙ্গবন্ধু ঘোষিত বাংলাদেশের স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হ্যান্ডবিল আকারে ইংরেজি ও বাংলায় ছাপিয়ে চট্টগ্রামে বিলি করা হয়৷ আওয়ামী লীগের শ্রম সম্পাদক জহুর আহমেদ চৌধুরী বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা চট্টগ্রামের ইপিআর সদর দপ্তর থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে ওয়্যারলেস মারফত পাঠানোর ব্যবস্থা করেন৷ চট্টগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হান্নান দুপুর ২টা ১০ মিনিটে এবং ২টা ৩০ মিনিটে চট্টগ্রাম বেতার থেকে বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠ করেন ৷

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ 

স্বাধীনতা ঘোষণা 

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তরের অর্জন

বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তর দেশের জাতীয় মানচিত্র প্রণয়নকারী প্রতিষ্ঠান। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ও ত্রিশ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা অর্জনের পর বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তরের স্বাধীন যাত্রা শুরু হয়। ....... সম্পূর্ণ ডাউনলোড লিংক   

পাকিস্তানের আত্মসমর্পণ 

এটলাস বাংলাদেশ

সার্ভে অব বাংলাদেশ বিভিন্ন স্কেলের বর্ণালী মানচিত্র প্রণয়নের একমাত্র সরকারি দেশজ প্রতিষ্ঠান। বৃটিশ ইন্ডিয়ান প্রশাসনে সার্ভে অব ইন্ডিয়া পরবর্তীতে সার্ভে অব পাকিস্তান এবং পরিশেষে সার্ভে অব বাংলাদেশ মানচিত্র প্রণয়নের ক্ষেত্রে দেশ ও জাতির কল্যাণে নিরলস সেবা প্রদান করে আসছে। ...  সম্পূর্ণ ডাউনলোড লিংক

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন 

 

আশ্রয়ণের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার

অন্যান্য ভিডিও

ফল আর্মিওয়ার্ম পর্যবেক্ষণ ও সনাক্তকরণ

বন্যার সময় কি করণীয়